মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

এক নজরে বাহুবল

                                                                            বাহুবল  উপজেলা

       

নামকরণঃ

 

জনশ্রতি এবং প্রাচীন লোকদের নিকট থেকে প্রাপ্ত তথ্য বিভিন্ন সময়ে প্রকাশিত পত্র-পত্রিকা হতে জানা যায় প্রাচীনকালে কুদরত মাল নামক জনৈক পলোয়ান বাহুবল এলাকায় বাস করতেন। মৌলভীবাজার জেলার দক্ষিণ বাগ থেকে পলোয়ান এসে ছিলেন কুদরত মালের সংগে মলল যুদ্দ করতে। দু পলোয়ানের মধ্যে দীর্ঘক্ষণ মলল যুদ্দের পর কুদরত মাল বিজয়ী হয়ে বীর দর্পে বলেছিলেন ‘‘বাহুকা বল দেখ বেটা ’’এ ঘটনাটি একটি প্রবাদ প্রবচনে প্রকাশ করা হয়েছে। ‘‘দক্ষিণ বাগ থেকে আইলো মাল মিরমিরাইয়া চায়, কুদরত মালের ঘুষি খাইয়া গড়াগড়ি বায়’’। কিংবদন্তীর মলল যুদ্ধে ‘‘দেখ বাহুকাবল’’ থেকে  বাহুবল নাম হয়েছে বলে অনেক মনে করেন। 

 

  শত বর্ষের প্রাচীন লোকদের মুখ থেকে শুনা যায় এক কালে অত্র এলাকার লোকজন ছিল খুবই শক্তিশালী ও বীরযোদ্ধা। তখনকার কেউ কোনরূপ ধারালো অসত্র ব্যবহার করত না বা ধারালো অসেত্রর ব্যবহার ছিল না। মারামারিতে ৩/৪ হাত লম্বা বড় একটি বাঁশের টুকরাই লাঠি হিসাবে ব্যবহার হতো। সে বাঁশের লাঠি যার হাত থেকে পরে যেত বা ভেংগে যেত সে হত পরাজিত। তার উপর আর কেউ আঘাত করত না। এছাড়া পাহাড়ের হিংস্র বাঘের সংগে অনেক সময় মানুষের হাতাহাতি যুদ্ধ হত। বাঘের হাত থেকে হরিণ ছিনিয়ে আনতেও লোকজন মোটেও ভয় পেত না। তাই এলাকার নির্ভীক মানুষের সাহসিকতা ও বীরত্বের পরিচয় হিসাবে ‘‘ বাহুবল ’’ নামের উদ্ভব হয়েছে বলেও ধারণা করা হয়।

 

 

 

অবস্থানঃ   উত্তরে- নবীগঞ্জ উপজেলা,  দক্ষিণে- চুনারঘাট উপজেলা,  পূর্বে- মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলা এবং পশ্চিমে হবিগঞ্জ সদর উপজেলা। রাজধানরি ঢাকা থেকে ১৮৫ কি মি: এবং হবিগঞ্জজেলা সদর হতে ২৫ কি.মি.পূর্ব দক্ষনে অবস্তিত। এতে ৭ টি ইউনিয়ন নিয়ে বাহুবল উপজেলার অবস্থান ।

আয়তন                          ঃ          ২৫০.৬৬ বর্গ কিঃ মিঃ

জনসংখ্যা                        ঃ          ১,৯৭,৯৯৭ ( ২০১১ সনের আদম শুমারী অনুযায়ী )

পুরম্নষ                            ঃ           ৯৮১০১ জন

মহিলা                            ঃ           ৯৯৮৯৬ জন

জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার          ঃ          ১.৬৭%

শিক্ষা সংক্রামত্ম                

শিক্ষার হার                      ঃ          ৩৯.৪%

প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা

বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা          ঃ         নাই

কলেজের সংখ্যা (সরকারী / বেসরকারী মাদ্রাসা)ঃ  কলেজ  ২টি  ( বেসরকারী) , মাদ্রাসা ১টি ( বেসরকারী)

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা (সরকারী / বেসরকারীমাদ্রাসা)ঃ   মাধ্যমিকস্কুল১২টি ( বেসরকারী) মাদ্রাসা০৭ টি( বেসরকারী)

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা              

(সরকারী/বেসরকারী মাদ্রাসা সহ)ঃ    ১১৬ টি । তনমধ্যে  ১০১ টি সরকারী , মাদ্রাসা ১৫ টি।

স্বাস্থ সংক্রামত্ম                  ঃ

উজেলা স্বাস্থ কমপেস্নক্স       ঃ                ০১টি

ইউনিয়ন উপ স্বাস্থকেন্দ্র       ঃ                ০২টি

ইউনিয়ন স্বাস্থ ও  পরিবার কল্যান কেন্দ্রঃ     ০৭ টি

কমিউনিটি ক্লিনিক             ঃ                ১৯টি

কৃষি সংক্রামত্মঃ

মোট জমির পরিমান            ঃ ২৪১৩.৪২

নীট ফসলী জমি                 ঃ         ২৩৬৭.৩৮

মোট ফসলী জমি                ঃ         ২৩৫৭.২৫

অগভীর নলকূপ                 ঃ         ১৯১৬    

শক্তি চালিত পাম্প             ঃ      না

যোগাযোগ ব্যবস্থাঃ

                      রাজধানী শহরের সাথে যোগাযোগের প্রধান মাধ্যমরেলপথওসড়কপথ। অধিকাংশ জনগণ  সড়কপথেই তাদের প্রধান মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে। সড়ক পথে ঢাকা থেকে ঢাকা সিলেট হাইওয়ে ধরে ১৮৫ কি.মি. দূরতেব বাহুবল উপজেলা ।উপজেলা পরিষদ কমপেস্নক্স ঢাকা সিলেট হাইওয়ের পূর্ব পাশের্ব রাসত্মার সন্নিকটে  অবস্থিত। ট্রেন পথে ঢাকা কমলাপুর রেলষ্টেশন হতে বা চট্টগ্রাম হতেরেল পথে শায়েশত্মাগঞ্জরেরষ্টেশনে আসতে হবে।সেকানথেকে বাহুবল উপজেলা ১২কিঃমিঃ দূরতেব অবস্থিত।

 

 বাহুবল উপজেলা প্রাকৃতিক বৈচিত্রে ভরপুর উপজেলা। এই উপজেলায় একই সাথে পাহাড়ী টিলা সমতল ভহমি এবং হাওড় অঞ্চল নিয়ে গঠিত। এই উপজেলায় ৭টি চা-বাগান উপজেলাকে পর্যটকদের কাছে আকর্ষনীয় করে তোলেছে। তা ছাড়া এইখানে নির্মাণাধীন ৫ তারকা বিশিষ্ট দি প্যালেস আকর্ষনের বিষয় বসত্মত্মুতে পরিণত হয়েছে। নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠি খাসিয়া-কালিগজিয়াদের জীবণ যাপন পর্যটকদের আকর্ষণে পরিণত হয়েছে।

ঐতিহাসিক স্থান